Home /আল্লাহ আমার রব /আল্লাহর নাম ও গুণাবলীর মাধ্যমে তাঁকে চিনুন /আল্লাহ ও তাঁর নাম ও গুণাবলীর মধ্যে বেঁচে থাকা /আল-গাফফার, আল-গাফুর: আল্লাহ ক্ষমাশীল, মার্জনাকারী

আল-গাফফার, আল-গাফুর: আল্লাহ ক্ষমাশীল, মার্জনাকারী


আল্লাহ ক্ষমাশীল, মার্জনাকারী, পরম ক্ষমাপরায়ণ।

নিশ্চয় তিনি আল্লাহ, ক্ষমাশীল, পরম ক্ষমাপরায়ণ। {নিশ্চয় আল্লাহ মার্জনাকারী ক্ষমাশীল।}
[সূরা: হজ্ব, আয়াত: ৬০।]

আল্লাহ ক্ষমাশীল, মার্জনাকারী, পরম ক্ষমাপরায়ণ।

তিনি সর্বদা বান্দাকে ক্ষমা করা ও মার্জনা করার বৈশিষ্ট্যে বিশেষায়িত, পরম ক্ষমাশীল হিসেবে স্বীকৃত। প্রত্যেকে যেমনিভাবে আল্লাহর রহমত ও দয়ার মুখাপেক্ষী, তেমনি তাঁর ক্ষমা লাভেরও মুখাপেক্ষী।

হে ঐ সত্তা! যিনি বান্দাকে ক্ষমাপ্রাপ্তির শর্তপূরণ সাপেক্ষে মার্জনা ও ক্ষমার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আল্লাহ বলেন: {আর যে তওবা করে, ঈমান আনে এবং সৎকর্ম করে, অতঃপর সৎপথে অটল থাকে, আমি তার প্রতি অবশ্যই ক্ষমাশীল।}[সূরা: ত্বহা, আয়াত: ৮২]

হে পরম ক্ষমাশীল! আমাদেরকে খাঁটি তওবা করার তওফীক দান করুন। এমন তওবা যার দ্বারা আমরা যাবতীয় গুনাহ থেকে পরিপূর্ণরূপে বাঁচতে পারব। নিজেদের ভুলত্রুটি ও নাফরমানির উপর লজ্জিত হব এবং আপনার আনুগত্য করা ও আপনার নাফরমানি পরিত্যাগের উপর সংকল্পবদ্ধ হবো। আমাদের ক্ষমা করুন হে পরম ক্ষমাশীল!

হে আল্লাহ, আপনি পরম ক্ষমাশীল! আপনি ক্ষমাকে ভালবাসেন, সুতরাং আমাদের ক্ষমা করুন। হে আল্লাহ! আপনি আমাদের জানিয়েছেন যে, আপনি পরম ক্ষমাশীল, অতিশয় দয়ালু। আল্লাহ তা'আলা বলেন: {আপনি আমার বান্দাদেরকে জানিয়ে দিন যে, আমি অত্যন্ত ক্ষমাশীল দয়ালু।}
[সূরা: আল-হিজ্‌র, আয়াত: ৪৯।]

সুতরাং হে পরম ক্ষমাশীল আমাদের উপর রহম করুন, আমাদের ক্ষমা করুন।

আল্লাহ ক্ষমাশীল, মার্জনাকারী, পরম ক্ষমাপরায়ণ।